পড়শি যদি আমায় ছুঁতো যম যাতনা সকল যেত দূরে: লালন সাঁই

পড়শি যদি আমায় ছুঁতো যম যাতনা সকল যেত দূরে: লালন সাঁই

hhhhhhhhhhhhhh

আজ এই কর্পোরেট শাসিত চিকিৎসা ব্যবস্থায় মুনাফা যখন সমস্ত আলোচনার ভরকেন্দ্রে তখন নর্মান বেথুন, দ্বারকানাথ কোটনিশের পথ ধরে আজও কিছু চিকিৎসক জেগে থাকেন মানবতার উজ্জ্বল প্রহরী হয়ে। আদিবাসী মানুষদের অধিকার রক্ষার সওয়ালের জন্য বিনায়ক সেনকে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে জেলে পোরা হয়। সংখ্যায় সামান্য হলেও এই চিকিৎসকরা আজও আমাদের ভরসা। এইরকমই এক চিকিৎসকের নাম কাফিল খান।

Read more


আর এস এসের ছুটির তালিকায় বড়দিনের, ঈদের বা মহরমের ছুটি থাকার কথা নয়, তাদের হিন্দু রাষ্ট্রে তো এটাই কাম্য। কিন্তু আমরা কজন জানি যে সেই কাঙ্খিত হিন্দু রাষ্ট্রে দোল উৎসব, দুর্গাপূজার সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী কিংবা লক্ষ্মীপুজোর ছুটিও নেই, কেননা সেগুলো আর এস এসের কল্পিত হিন্দু রাষ্ট্রে হিন্দুদের উৎসব নয়। কী বোঝা গেল বাঙালি? ওরা না হয় মুসলমান, আপনারা তো বাঙালি! আর এস এসের রাজনৈতিক মুখ বিজেপি ক্ষমতায় আরেকবার এলে বাঙালির আরও কী কী উৎসব চিরকালের জন্য নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে তার ইঙ্গিত রয়েছে এই বইয়ের বিভিন্ন ছত্রে, বিশেষ করে আর এস এসের ছুটির তালিকায়।

Read more


মারিয়া কাসোলরি তাঁর অসাধারণ গবেষণায় দেখিয়েছেন, কীভাবে সেই ১৯২৫ সালে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ প্রতিষ্ঠিত হবার সময় থেকেই প্রথমে ইতালিতে বেনিতো মুসোলিনি-র ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্র এবং তার একদশকের মধ্যেই জার্মানিতে হিটলার-প্রতিষ্ঠিত জার্মান ফ্যাসিবাদে আপ্লুত ছিলেন ভারতের হিন্দুত্ববাদীরা।

Read more


গঙ্গা-যমুনা বিধৌত ভারতের যে মিশ্র সংস্কৃতির ঐতিহ্য তাকে ভুলিয়ে দেওয়ার উল্টে দেওয়ার প্রকল্প ফেঁদে বসেছে কেন্দ্রের শাসক দল আর তাদের পিতা রাষ্ট্রীয় স্বয়ম সেবক সংঘ। এমন এক ভয়ানক সময়ে খুবই দরকারি একটি গ্রস্থ পাঠের সুযোগ হল। সেই পাঠ-অভিজ্ঞতা অন্যদের সহ্গে ভাগ করে নিলেন মিলন দত্ত।

Read more


কৃত্রিম বুদ্ধি নিয়ে মহা শোরগোল। অনেকে বলছেন যে কোনও নতুন প্রযুক্তি এলেই সেটা নিয়ে গেল গেল রব ওঠে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা অন্য যে কোনও প্রযুক্তি নয়। এটা অতীতের প্রযুক্তি থেকে গুণগত ভাবে আলাদা। লেখক প্রথমেই ফাদার অফ কম্পিউটিং সায়েন্স অ্যালেন টিউরিং ১৯৪৭ সালে যা বলেছিলেন তা আমাদের স্মরণ করাচ্ছেনঃ ‘আমরা চাই এমন একটা যন্ত্র যা অভিজ্ঞতা থেকে শিখতে পারে।’ এই কথাই কিন্তু আজকে সমাজবিজ্ঞানী য়ুভাল নোয়া হারারি বলছেন। তাঁর কথায়, এ আই মানব সভ্যতার অপারেটিং সিস্টেম হাইজ্যাক করে নিয়েছে। শঙ্খদীপ ভট্টাচার্যের লিখিত ‘অযান্ত্রিকের কড়চা' পড়লেন সোমনাথ গুহ

Read more


যে কজন লেখকের কাছে পাঠক হিসেবে সমৃদ্ধির প্রত্যাশা রাখি, মার্কিন প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী লেখক পার্থ বন্দোপাধ্যায় তাঁদের অন্যতম। কারণ তাঁর প্রতিটি লেখাই জীবনের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা এবং জীবনবোধ থেকে নিঃসৃত, এবং একই সঙ্গে নির্ভরযোগ্য উৎস ও তথ্য সম্বলিত থাকে, যা সমাজের সমকালীন বিষয়গুলোকে নিয়ে পাঠককে নতুন করে ভাবায় । দেখা যাক লেখকের সদ্য প্রকাশিত “আমেরিকা স্বপ্নপুরী না হত্যাপুরী” বইটিতে এই প্রত্যাশা ঠিক কতটা পূরণ হয়।

Read more


দেবানুর মহাদেবা রচিত পুস্তিকা ‘আরএসএস: তার গভীরতা ও ব্যাপ্তি’ কর্নাটকে ব্যাপক আলোড়ন তুলেছে। কর্নাটকে হিন্দুত্ববাদী শক্তিগুলোর আগ্ৰাসন এখন তার শিখরে পৌঁছেছে। হিজাব, আজান, পাঠ্যপুস্তকে পাঠ্যক্রমের পরিবর্তন, ইত্যাদি ইস্যুগুলোকে ধরে তারা আক্রমণাত্মক মুসলিম-বিরোধী প্রচার লাগাতার চালিয়ে আসছে।

Read more


সুপ্রতিম কর্মকারের নদীকে জানা বোঝা শুরু নদীর জেলা নদিয়া থেকে। সেই জেলাটা তার নিজের জন্মস্থান।জলঙ্গি, চূর্ণী, মাথাভাঙা,পাগলাচন্ডী,ছোট গঙ্গা,চকাই, যমুনা, মরালী, অঞ্জনা আরো অসখ্য নদীর ভূগোল ইতিহাসের হদিস পাওয়া যাবে নোটবুকে।শুধু নদী নয়,আছে খাল বিলের সঙ্গে জলাভূমির পরিচয়। পশ্চিমবঙ্গের দ্বিতীয় নয়াচর, চরটার নাম বলাগড় চড়,তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র তৈরির প্রস্তাব বিপর্যয় ডেকে এনেছিল মৎস্যজীবীদের জীবনে। আবার সুন্দরবনের তেল দূষণে নদী হয়ে উঠেছিল নর্দমা। তিনি না লিখলে, কে লিখবেন 'নদীজীবির নোটবই', পড়লেন নব দত্ত।

Read more


ইসমাইল দরবেশের ‘তালাশনামা’ বাংলা কথাসাহিত্যে নিশ্চিতভাবেই গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন। এ আখ্যান পাঠককে পৌঁছে দেয় প্রতিবেশীর অন্দর মহলে। ইসলাম আর মুসলমানকে জানার বড় সুযোগ করে দিয়েছেন লেখক। হাজারো উপন্যাসের ভিড়ে কখনও হারিয়ে যাবার নয় অনন্য এ ‘তালাশনামা’।

Read more


স্বাধীনতার রজত জয়ন্তীতে, সেই ১৯৭২ সালে, প্রখ্যাত সাংবাদিক বিবেকানন্দ মুখোপাধ্যায় ছিলেন 'সত্যযুগ' পত্রিকার সম্পাদক। তিনি সেই সময় লিখেছিলেন, "ভারতীয় স্বাধীনতার ২৫ বছর নিশ্চয়ই একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা এবং ইতিহাসের বিচারে একটি নূতন পরিচ্ছেদের আরম্ভ। কেননা, যে পঁচিশ বছর আমরা পিছনে ফেলে এলাম, বলা যেতে পারে সেইটি ভারতীয় জনগণের আসল স্বাধীনতার কিংবা জাতীয় মুক্তির ভূমিকা মাত্র। আজকে ২০২২ সালে স্বাধীনতার ৭৫ বছরে, আমরা কি পাচ্ছি?

Read more


ক্ষমতাবান কেউ দেশাচার-বহির্ভূত কোনও ঘটনা যদি ঘটিয়েই ফেলে বৃহত্তর স্বার্থের উদ্দেশ্যে, কল্পিত কাহিনী পুরাকাহিনী বলে মুখে মুখে প্রচলিত করে দেওয়া এবং এই দেশাচার-বিরুদ্ধ ঘটনা কেবলমাত্র ঐ পূর্ব- কাহিনীর বিলম্বিত অধ্যায় বলে মানুষকে বিশ্বাসে স্থিত করা, সাধারণের চোখে যা অস্বাভাবিক তাকে স্বাভাবিক প্রতিপন্ন করে তোলার যে সুচিন্তিত প্রচেষ্টা এ মহাভারতের কালে বারংবার দেখা গেছে।

Read more

by সুতপা সেন | 11 December, 2021 | 0 Comment(s) | 2466 | Tags : Book Review Mahabharat


৭ বছরের ছোট্ট মেয়ে নিদার জীবন কাটত হেসে খেলে, শিশুসুলভ চপলতায়। অতি স্নেহশীল, ভীতু, অতি সাধারণ বাবার নজর এড়িয়ে নিদা বৃহত্তর পৃথিবীকে জানতে চাইত। কি ছিল সেই বৃহত্তর পৃথিবীতে? ছিল ছোট্ট মেয়ের ছোট্ট চাওয়া - সাইকেল চালাতে পারা …… দু হাত ছেড়ে, পাখির মত ডানা মেলা ভঙ্গীতে। ২০১৯ এর নভেম্বর মাস। বাইরের পৃথিবী তখন বদলে যাচ্ছিল। সাইকেলের গতিতে, পাখির মত দু ডানা প্রসারিত করে ছোট্ট নিদা সামিল হয়ে গেল সেই পৃথিবীতে, মানুষের উৎসবে। নিদার চোখ দিয়ে, নিদাদের চোখ দিয়ে সমকালকে দেখা সামিনা মিশ্রর কলম আর প্রিয়া কুরিয়ানের অলংকরণে “ Nida finds a way” প্রকাশকাল ঃ জুন ২০২১।

Read more


আমাদের ছেলে মেয়েরা যদি প্রশ্ন করে এই অন্য পৃথিবী নিয়ে, যদি জানতে চায় কেন আমরা তাদের জানতে দিইনি তাদের সহ নাগরিকদের কথা তখন কী উত্তর দেব? আমরা তো আমাদের সুবিধাবাদ দিয়ে জামলোকে মরে যেতে দিয়েছি, রামপুকার পণ্ডিতের বুকফাটা কান্না আমাদের নাড়া দেয়নি, বিহারশরিফের একরত্তি বাচ্চার মৃত মায়ের মুখ আমরা ভুলে মেরে দিয়েছি। এই প্রজন্ম তবু জানুক তাদের হারিয়ে যাওয়া সহ নাগরিকদের, ভাবুক, তৈরি হোক তাদের বাবা মায়েদের ক্রিমিনাল নীরবতা, অপারগতার গ্লানি কিছুটা লাঘব করতে। কারণ “the sky is still blue. Roads are still long. People are still walking”.

Read more


মহাভারতের ভীষ্মপর্বে আছে, শরীরে সর্বদা তিনের যুদ্ধ চলছে। এই ত্রিধাতুর সমতার নাম স্বাস্থ্য। আবার সত্ত্ব, রজো ও তমের সমতার নাম মানসিক স্বাস্থ্য। পিত্ত, শ্লেষ্মা ও বায়ুর সমষ্টিকে মহাভারতে ‘সঙ্ঘাত’ বলা হয়েছে। এই সঙ্ঘাতের সাম্যে দেহ সুস্থ থাকে। আয়ুর্বেদাচার্যরা তাই ত্রিধাতুকে ‘ঈশ্বর’ বলেছেন। ব্যাধির জন্ম শরীরে আর আধির জন্ম মনে। আধি-ব্যাধি কিংবা জরা শরীরে এসে বাসা বাঁধলে ঈশ্বর উড়ে চলে যান।

Read more

by শামিম আহমেদ | 17 December, 2020 | 0 Comment(s) | 2575 | Tags : Book Review