পড়শি যদি আমায় ছুঁতো যম যাতনা সকল যেত দূরে: লালন সাঁই

পড়শি যদি আমায় ছুঁতো যম যাতনা সকল যেত দূরে: লালন সাঁই

hhhhhhhhhhhhhh

অন্যান্য পোস্ট

সিকান্দার লোদিকে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন

এ বছর ২১ নভেম্বর দিল্লীর তুঘলকাবাদে লোদি গার্ডেনসে সিকান্দার লোদির সমাধিস্থলে হাজির হয়ে তাঁকে শ্রদ্ধা জানালেন দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা দলিত আন্দোলনের নেতাকর্মীরা। তাঁরা ধ্বনি তুলছিলেন, "সিকান্দার লোদি অমর রহে। জয় গুরুদেব। জয় ভীম।"

জেএনইউ র ছাত্র আন্দোলনের কিছু কথা।

জেএনইউ র ছাত্ররা বিগত ৬ বছর ধরে লড়ছে। লড়বে আগামীদিনেও। আমাদের একমাত্র করণীয় তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে জনতার এই বিশ্ববিদ্যালয়কে বাঁচিয়ে রাখা।

অসমের বন্দীশিবির যেন নাৎসি ডিটেনশন ক্যাম্প

আন্তর্জাতিক আইন বলছে, বিদেশীদের জেলে বন্দী করে রাখা যায় না। তাঁদের সঙ্গে অপরাধীর মতো ব্যবহার করা যায় না। কোনও দেশে অবৈধভাবে কেউ বসবাস করলে তাঁদের মুক্ত শিবিরে নজরবন্দী করে রাখা যেতে পারে। জেলে কখনই আটক করে রাখা যায় না। এটা ভারতীয় সংবিধানের ২১ নম্বর ধারা এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার নিয়মাবলীর সরাসরি লঙ্ঘন। অসমের বন্দীশিবিরগুলোতে সেটাই ঘটে চলেছে।

ভুতের দাদাগিরি না দাদার ভুত?

ইদানীং নাকি সবাই ভুত দেখছে, কোথায় না ‘জি বাংলা’য়। দাদাগিরিতে। দাদাগিরির মতো অনুষ্ঠানে কেন সৌরভ গাঙ্গুলীদের মতো লোকদের আনা হয় বলুন তো? সেই নিয়ে কিছু কথা

নিয়মিত কলাম

নোবেলপুজো, প্রেসিডেন্টপুজো

আইকনে বাইগনে হল গলাগলি পুজো গেল এ নিয়েই মজিল বাঙালি। কাজে আচে অকাজেও থাকিলেই হয় যারে পাও পায়ে ধরে বলো তার জয় ।

কু নাট্য

ফোন আপনারই থাকবে, কিন্তু আমি সব জানতে পারব কাকে কী বলছেন, কী পাঠাচ্ছেন, কোথায় যাচ্ছেন। আর সুবিধামত আমার যা ইচ্ছে তাও ঢুকিয়ে দেব আপনার ফোনে।

আখ্যান

তেতে উঠছে উত্তর-পূর্বের বাকি রাজ্যগুলো

অসমের পরে এবার নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মেঘালয়, অরুণাচল, মিজোরাম এবং ত্রিপুরা বিদেশি নাগরিক চিহ্নিতকরণ নিয়ে তৎপর হয়েছে। আবার একটা অশান্ত সময়ের মধ্যে যেন ঢুকে পড়ছে উত্তরপূর্বাঞ্চল।

নোবেলপুজো, প্রেসিডেন্টপুজো

আইকনে বাইগনে হল গলাগলি পুজো গেল এ নিয়েই মজিল বাঙালি। কাজে আচে অকাজেও থাকিলেই হয় যারে পাও পায়ে ধরে বলো তার জয় ।

উনিশ শতক চর্চা এবং আমাদের এই সময়

উনিশ শতক বা প্রাচীন ভারতের গবেষণা বর্তমান ভারতে আর নেহাৎ অ্যাকাডেমিক চর্চার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই।

আপনি বাঁচলে বাপের নাম।

কেন্দ্রের অধুনা সরকার এটা খুব ভালো বোঝে যে বহু হিন্দু মানুষের মধ্যে একটা মুসলিম বিদ্বেষ কাজ করে সেটাকে কাজে লাগাতে পারলেই ক্ষমতায় থাকাটা তাঁদের জন্য সুবিধাজনক। আর প্রতিটি মানুষ শেষ বিচারে একা

বদর সাহেবের মাজার : একটি এক দিনের অনুসন্ধান রিপোর্ট

মুর্শিদাবাদ ডাঙাপাড়া অঞ্চলের  অন্তর্গত হুলাসপুর গ্রামের সবাই বদর সাহেবের মাজারে যেতেন। তাঁদের জীবন চর্যার একটি অঙ্গ ছিল এই মাজার শরিফ। সেটা ভেঙে দেওয়ার কারন কি?

পাঁচসংবাদ

প্রতিদিন তৈরি হচ্ছে হাজারো খবর— সংবাদমাধ্যমে এবং হালের আরও নানা বৈদ্যুতিন মাধ্যমে। তারই ভিতর থেকে পাঁচটি খবর বাছাই করে আপনাদের সামনে হাজির করা হল। কিছু সংবাদ আপনারা পড়ে ফেলেছেন, কিছু হয়তো এড়িয়ে গেছে চোখ। পাঁচমিশেলি খবরের ডালি ‘পাঁচসংবাদ’